উত্তর কোরিয়াকে বিপজ্জনক ঘোষণা জাপানের

এখন পুরোপুরি বিপদ কাটেনি। বিশ্বের জন্য এখনও চরম আতঙ্কের বিষয় উত্তর কোরিয়া। কড়া ভাষায় পিয়ংইয়ং-এর সমালোচনা করে শ্বেতপত্র প্রকাশ করল জাপান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে শান্তি বৈঠকের পরেও নিজেদের চরিত্রে বদল করেননি দেশটির সর্বাধিনায়ক কিম জং উন। বরং সকলের অলক্ষ্যে এখনও চালিয়ে যাচ্ছে পারমাণবিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা। এই নিয়েই মঙ্গলবার ক্ষোভ প্রকাশ করে জাপানের প্রতিরক্ষা দফতর। জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার কার্যকলাপ কেবল ওই অঞ্চলই নয়, সমগ্র বিশ্বের কাছেই অত্যন্ত আতঙ্কের।

আমেরিকার মতই জাপানও বারবার চেয়ে এসেছে নিরস্ত্রীকরণের পথে হাঁটুক কিম। চলতি বছরের ১২ জুন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্টে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে করমর্দন করেন কিম। শর্তসাপেক্ষে মেনে নেন আমেরিকার নিরস্ত্রীকরণের দাবি।

তবে জাতিসংঘের সাম্প্রতিক রিপোর্ট কিন্তু অন্য কথা বলছে। সেখানে বলা হয়েছে, এখনও আগের মতই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে পিয়ংইয়ং। আন্তর্জাতিক বিশ্বের নজর এড়িয়ে এখনও অনেক দেশে অস্ত্র বিক্রি করে চলেছে তারা। চালিয়ে যাচ্ছে তারা পারমাণবিক পরীক্ষা। কারণ এখনও পর্যন্ত পারমাণবিক কেন্দ্রগুলোকেই ধ্বংস করতে পারেনি উত্তর কোরিয়া। প্রকাশিত শ্বেতপত্রে এই বিষয়গুলো নিয়েই সরব হয়েছে টোকিও। উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে এখনই যে তারা নীতি বদলাচ্ছে না তা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে জাপানের প্রতিরক্ষা দফতর।

নিরস্ত্রীকরণ না করা পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বিভিন্ন দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক বন্দের নির্দেশ দেয় জাতিসংঘ। আন্তর্জাতিক এই সংগঠনের নির্দেশ অমান্য করে পিয়ংইয়ং-এর সঙ্গে বাণিজ্য চালিয়ে যাওয়ায় রাশিয়া ও চীনের একাধিক সংস্থাকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে আমেরিকা।

ওয়াশিংটনের এই পদক্ষেপের পাশে দাঁড়িয়ে একে স্বাগত জানিয়েছে জাপান। উত্তর কোরিয়াকে ভর্ৎসনা করে সম্প্রতি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও-র কোরিয়া সফর বাতিল করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যাকে সমর্থন করেছে জাপান।

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments