উল্লাপাড়ায় দুধের মধ্যে টেংরা মাছ

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জনিউজ ২৪  ) প্রতিনিধিঃ শনিবার উল্লাপাড়া উপজেলার লাহিড়ী মোহনপুর এলাকায় নদী থেকে দুধে পানি মেশানোর সময় মোতালেব হোসেন নামের এক দুধ ব্যবসায়ীকে হাতে নাতে ধরেন ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ভেজাল দুধের পাত্র থেকে ১ টি তাজা টেংরা মাছ উদ্ধার করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামান মোতালেবকে ৩ মাসের কারাদন্ড প্রধান করেন। মোতাবেল হোসেন লাহিড়ী মোহনপুরের দুধ ব্যবসায়ী খগেন্দ্রনাথ ঘোষের সংগে কাজ করেন। তিনি পার্শ্ববর্তী সলংগা থানার ঘুরকা গ্রামের চান্দু শেখের ছেলে। ঘটনার সময় খবর পেয়ে মূল ব্যবসায়ী খগেন্দ্রনাথ পালিয়ে যায়।
উল্লাপাড়া উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক এস. এম. শহিদুল ইসলাম জানান, একটি সংঘবদ্ধ চক্র লাহিড়ী মোহনপুর বাজারে নিয়মিত ভেজাল দুধ উৎপাদন করে দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় এসব দুধ বিক্রি ও সরবরাহ করে আসছে বলে তাদের কাছে অভিযোগ রয়েছে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার সকালে উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত সরেজমিনে লাহিড়ী মোহনপুর বাজারে গেলে পাশের নদীতে দুধে পানি মেশানোর বিষয়টি তাদের নজরে আসে। এসময় নৌকায় রাখা ৮ টি বড় দুধের পাত্রে মোট ৩২০ কেজি ভেজাল দুধ জব্দ করা হয়। দুধে ভেজাল মেশানোর সময় আটক মোতালেব হোসেন জানান, প্রতি ১ মন দুধে ৮ কেজি করে পানি মিশিয়ে তারা বাজারে বিক্রি করে থাকেন। নদী থেকে পানি মেশানোর সময় দুধের পাত্রে ১ টি টেংরা মাছ চলে যায়। পরে পাত্র থেকে তাজা এই টেংরা মাছটি ধরা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত বিচার শেষে জব্দ করা সমুদয় দুধ নদীতে ঢেলে ফেলেন। দুধের পাত্র থেকে তাজা টেংরা মাছ বের হওয়ার ঘটনাটি এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments