ওয়াই-ফাইয়ের গতি হবে আরও পাঁচ গুণ

ষ্টাফ রিপোর্টার ঃতারহীন ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে ওয়াই-ফাই দ্রুতই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে বিশ্বব্যাপী। তবে দিন দিন যেভাবে হাই-এন্ড মাল্টিমিডিয়া কনটেন্টের ব্যবহার বাড়ছে, তাতে করে দিন দিন আরও বেশি উচ্চগতির সংযোগ প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। সে কারণে প্রচলিত ওয়াই-ফাই প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণাও থেমে নেই। এর ধারাবাহিকতায় দক্ষিণ কোরিয়ার টেক জায়ান্ট স্যামসাং এবারে ওয়াই-ফাইয়ের নতুন এক স্ট্যান্ডার্ড উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়ে যাতে প্রচলিত ওয়াই-ফাইয়ের চাইতে পাঁচ গুণ বেশি গতিতে তথ্য স্থানান্তর করা যাবে। প্রচলিত ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে বাস্তবে যে গতি পাওয়া যায়, তার তুলনায় অবশ্য এই গতি দশ গুণ। ৮০২.১১এডি স্ট্যান্ডার্ডের এই ওয়াই-ফাইয়ে সর্বোচ্চ ৪.৬ জিবিপিএস পর্যন্ত গতি পাওয়া যাবে। এতদিন পর্যন্ত ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে এমন উচ্চগতি তাত্ত্বিক পর্যায়ে সীমাবদ্ধ থাকলেও স্যামসাং এই গতি বাস্তবে অর্জন করতে পেরেছে। ৬০ গিগাহার্জ ব্যান্ডের এই ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে আস্ত একটি সিনেমা স্থানান্তর করা যাবে মাত্র তিন সেকেন্ডে। আর সম্পূর্ণ হাই-ডেফিনেশন ভিডিও স্ট্রিমিং করা যাবে রিয়েল টাইমেই। বাস্তবে এমন গতি অর্জন করায় এমন উচ্চগতির ওয়াই-ফাই সমর্থিত ডিভাইস বাজারে আনাও সম্ভব বলে জানিয়েছে স্যামাসং। আগামী বছরেই এমন ডিভাইস বাজারে আনার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। স্যামসাংয়ের এই অর্জন সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানটির গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের প্রধান কিম চ্যাং ইয়ং এক বার্তায় বলেন, ‘৬০ গিগাহার্জ ব্যান্ডের ওয়াই-ফাই প্রযুক্তি বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের সীমাবদ্ধতাগুলো অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে স্যামসাং। এতে করে ২.৪ গিগাহার্জ ও ৫ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাইয়ের তুলনায় বাস্তবে দশ গুণ বেশি গতি অর্জন করা গেছে। ফলে স্যামসাংয়ের পরবর্তী প্রজন্মের ডিভাইসগুলোতে আসতে যাচ্ছে উদ্ভাবনী সব পরিবর্তন। আবার ওয়াই-ফাই প্রযুক্তির উন্নয়নেও নতুন দ্বার উন্মুক্ত করেছে এই সাফল্য।’ স্যামসাং জানিয়েছে, সামনের বছরেই ৬০ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাই প্রযুক্তি তারা সংযোজন করবে বিভিন্ন ডিভাইসে। স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট পিসির মতো গ্যাজেট ছাড়াও অডিও-ভিজ্যুয়াল ও মেডিকেল ডিভাইস, টেলিকমিউনিকেশন ইকুইপমেন্ট প্রভৃতিতেও পাওয়া যাবে এই প্রযুক্তি। এ ছাড়া স্যামসাং স্মার্ট হোম এবং ইন্টারনেট অব থিংসের সাথে সংশ্লিষ্ট সব ধরনের গ্যাজেটেও হাজির হবে এই প্রযুক্তি।
02

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.