দেশে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড নিয়ে অপব্যাখ্যা রয়েছে ;প্রধান বিচারপতি

1466963375প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড নিয়ে এক ধরনের বিভ্রান্তি রয়েছে। রয়েছে অপব্যাখ্যাও। যাবজ্জীবন অর্থ হল একেবারে যাবজ্জীবন, রেস্ট অফ দ্য লাইফ (মৃত্যুর আগ পর্যন্ত)।

 

গতকাল রবিবার গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার পরিদর্শনের সময় সেখানে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি একথা বলেন।

 

প্রধান বিচারপতি বলেন, যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বলতে আপনারা মনে করেন ৩০ বছরের সাজা। এ ধরনের সাজাপ্রাপ্ত আসামি জেলখাটার সময় রেয়াত পেলেও সেটা কোনোমতেই ৩০ বছরের কম হয় না।

 

ব্রিটিশ আমলে কারাগারগুলোতে যাবজ্জীবনের প্রশ্ন ছিল না উল্লেখ করে তিনি বলেন, তখন একেবারে দ্বীপান্তর করা হত। আমাদের জেল কোড অনেক পুরাতন। এটা নিয়ে ব্রিটিশ আমলে অনেক জগাখিচুড়ি হয়েছে।

 

প্রধান বিচারপতি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় কিছু ত্রুটি ছিল। সেগুলো আমি সংশোধন করতে পেরেছি। জেল হত্যা মামলায় দুঃখজনক হলেও সত্যি, আমি একাই ডিসেনটিং রায়  দিয়েছিলাম। সেখানে ষড়যন্ত্র ছিল, প্রমাণিত হল। কিন্তু ষড়যন্ত্রের জন্য তাদের শাস্তি হল না, আমি স্তম্ভিত হলাম। পরিকল্পিতভাবে হত্যার জন্য যারা পরিকল্পনা করেছে, তাদের প্রত্যেকের শাস্তি হওয়া উচিত।

 

প্রধান বিচারপতি বন্দীদের মামলা সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনে তা নিরসনে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন বলে কারা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। প্রধান বিচারপতি কারাগারে পৌঁছলে তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। দেওয়া হয় গার্ড অব অনার। বিচারপতি সিনহা কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর অভ্যন্তরে কারা গ্রন্থাগার, পাওয়ার লুম সেকশন, কারাবন্দি পুনর্বাসন স্কুল, কারা বেকারি, প্রশিক্ষণ কক্ষ, আসবাবপত্র তৈরির স্কুল, কারা ডিজিটাল প্রিন্টিং প্রেস, গার্মেন্ট প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, দর্জি প্রশিক্ষণ, সূচি শিক্ষা, হস্তশিল্প, রন্ধনশালা এবং ২০০ শয্যার হাসপাতাল ঘুরে দেখেন।

 

কারাগার পরিদর্শনের সময় প্রধান বিচারপতির সঙ্গে ছিলেন কারামহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম আলম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ, সিনিয়র জেল সুপার মিজানুর রহমান, সুব্রত কুমার বালা ও প্রশান্ত কুমার বনিক।
লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.