পাসপোর্টের কাজ করবে আইফোন!

অ্যাপল আরও একটি নতুন প্যাটেন্ট আবেদন করেছে। এতে টেক জায়ান্টটি কিভাবে আইফোনকেই পাসপোর্ট হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে তা তুলে ধরেছে।অ্যাপল নিজস্ব তথ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা ‘সিকিউর অনক্লেভের’ মধ্যেই ব্যবহারকারীদের ব্যাংক কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্সের মত কাগজপত্র সুরক্ষিত রেখে ব্যবহারের সুবিধা দিচ্ছে।

আইফোনের হার্ডওয়্যার ব্যবহার করে ফোনে থাকা কার্ডের তথ্য দিয়েই ব্যবহারকারীরা ব্যাংকিং, পরিচয় নিশ্চিত করার মতো কাজ সারতে পারছেন।বর্তমানের ই-পাসপোর্টের মধ্যেও বহনকারীর পরিচয়ের সকল তথ্য একটি চিপের মধ্যে সুরক্ষিত থাকে।

আরএফআইডির মাধ্যমে তারহীনভাবে পাসপোর্ট রিডার মেশিন যা পড়ে থাকে। সেক্ষেত্রে ই-পাসপোর্ট চিপের তথ্য যদি সিকিউর অনক্লেভে রাখা যায় তাহলে আইফোন ব্যবহার করেই পাসপোর্টের কাজও চালানো যেতে পারে বলে যুক্তি অ্যাপলের।তবে এ ফিচার শিগগির আসার সম্ভাবনা খুবই কম। টেক জায়ান্টটি যদি বিভিন্ন দেশের ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি করতে পারে তাহলেই শুধু এ সুবিধা তারা দিতে পারবে। আর চুক্তির বিষয়টি সহজ ও দ্রুত হবে বলে মনে করছেন না বিশ্লেষকরা।

Source: ইউবারগিজমো

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.