ভারতে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি জঙ্গিদের

1492365098

ভারতে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি দিয়েছে জঙ্গিরা। এই হুমকি মোকাবেলায় গতকাল রবিবার তিনটি বিমানবন্দরে হাইএলার্ট জারি করা হয়। বিমান ছিনতাইবিরোধী সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে মুম্বাই, চেন্নাই এবং হায়দরাবাদ বিমানবন্দরে। শনিবার তিনটি বিমানবন্দর থেকে একসঙ্গে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি সম্বলিত একটি বার্তা এসেছিল পুলিশের কাছে।

বিমান ছিনতাইয়ের পরিকল্পনার খবর জানার পর বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বাহিনী সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্স (সিআইএসএফ) কঠোর নজরদারিতে নামে। বিমানবন্দরগুলোতে স্লিপার ডগ এনেও তল্লাশি চালানো হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার মুম্বাই পুলিশের এক সিনিয়র কর্মকর্তার কাছে একটি ই-মেইল পাঠান এক নারী। ওই নারী জানান, তিনি একটি রেস্টুরেন্টে বসেছিলেন, এই সময় তিনি ছয়জনকে বিমান ছিনতাইয়ের ব্যাপারে কথা বলতে শুনেছেন। ২৩ জনের একটি দল মুম্বাই, চেন্নাই এবং হায়দরাবাদ থেকে রবিবার একসঙ্গে বিমান ছিনতাই করবে বলে তারা আলোচনা করছিল। এই ই-মেইল পাওয়ার পর সিআইএসএফকে সতর্ক করে মুম্বাই পুলিশ। প্রতিটি বিমানবন্দরে সিআইএসএফ সন্ত্রাসবিরোধী দল নামিয়েছে। বিমানবন্দরের প্রবেশ ও বহির্গমন পথ এবং পার্কিংলটে নজরদারি বাড়ানো হয়। সিআইএসএফের কুইক রিঅ্যাকশন টিম তিনটি বিমানবন্দরেই ছিনতাইবিরোধী ড্রিল শুরু করে। বিমানবন্দরের বিভিন্ন অংশের নিরাপত্তা নতুন করে খতিয়ে দেখা হয়। সিআইএসএফ ছাড়াও কমান্ডো বাহিনী এনএসজিকেও সতর্ক করা হয়। তাদেরকে যে কোনো মুহূর্তে অভিযানে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়। বিমান সংস্থাগুলোকেও নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়। যাত্রীদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। শেষ মুহূর্তে তাদের চেইক ইন না করতে এবং তল্লাশি ও নজরদারির কাজে সহযোগিতা করারও অনুরোধ জানানো হয়েছে। শনিবারই বিমানবন্দরের সমন্বিত নিরাপত্তা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সিআইএসএফের মহাপরিচালক ওপি সিংহ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, বিমানবন্দরগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কঠোর করা হয়েছে। টহলের সংখ্যা বাড়ানো এবং শক্তিশালী করা হয়েছে। এর আগে ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে আফগানিস্তানের কাবুলগামী এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি এসেছিল।        তখন সিআইএসএফ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিল। বিমানবন্দরগুলোতে ছিনতাইবিরোধী ড্রিল ব্যবহার করেছিল। পুলিশ ও গোয়েন্দাদের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা বৃদ্ধি করা হয়েছিল। এবার ওই নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যালোচনা করে আরো কঠোর করা হয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.