ভাড়া করা কর্মী দিয়ে সমাবেশে জনসমাগম দেখালো ঐক্যফ্রন্ট

৬ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে ভাড়া করা লোক দিয়ে জনসমাগম দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। সমাবেশস্থলে উপস্থিত একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে এর সত্যতা নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সমাবেশস্থলে কর্মী হয়ে উপস্থিত থাকা আবদুস সাত্তার নামের একজনের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, এখানে কিসের সমাবেশ চলছে সে বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তুরাগ থানা বিএনপির সভাপতি আমান উল্লাহ মেম্বার আমাকে ৫০০ টাকা দিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আসতে বলেছে, তাই আমি এসেছি।

এদিকে আবদুস সাত্তার ছাড়াও সমাবেশস্থলে উপস্থিত থাকা বিল্লাল মিয়া বলেন, এখানে উপস্থিত প্রায় সবাইকে বিভিন্ন এলাকার বিএনপি নেতা-কর্মীরা টাকার বিনিময়ে নিয়ে এসেছেন। কেউ ৫০০ টাকা, কেউ আবার ৩০০ টাকার বিনিময়ে সমাবেশে এসেছেন। তবে এমন অনেক লোক এ সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন, যাদের বিএনপি নেতা-কর্মীরা শুধু বিরিয়ানির খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে নিয়ে এসেছেন।

এ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিভুরঞ্জন সরকার বলেন, এ সমাবেশকে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ বললে ভুল হবে। বাংলাদেশের মানুষ জানে ড. কামাল, ডা. জাফরুল্লাহ, মাহমুদুর রহমান মান্না এবং আ স ম আবদুর রবের নিজস্ব দলীয় কর্মী হাতে গোনা কয়েকজন। তাদের সঙ্গে জনগণের কোন যোগাযোগ নেই। সমাবেশে যতো লোক দেখেছেন, সবাইকে বিএনপি এবং জামায়াতের কর্মীরা ভাড়া করে নিয়ে এসেছে।

তবে বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এখনকার সমাবেশে বেশিরভাগ মানুষ টাকার বিনিময়ে আসেন। এটা বড় কোনো বিষয় নয়। তবে সাধারণ জনগণ আমাদের পক্ষে আছেন। যা নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমেই প্রমাণ পাবেন।

লাইক এবং শেয়ার দিয়ে পাশে থাকুন
20

Comments

comments